নেইমার মাঠে বর্ণবাদের শিকার , দেখলেন লালকার্ড!

নেইমার
নেইমার

নেইমার করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠে প্রথমবারের মতো ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন নেইমার। আর সেই ম্যাচেই নেইমার লাল কার্ড দেখলেন এবং সাথে বর্ণবাদের শিকার হলেন। তার অপরাধ, তিনি মার্সেইয়ের খেলোয়াড় আলভারো গঞ্জালেজকে মাথার পেছন দিকে আঘাত করেন।

তবে নেইমার বলছেন, গঞ্জালেজ তাকে বর্ণবাদী মন্তব্য করে। এ কারণেই তিনি তাকে আঘাত করেন। ররিবার ম্যাচ শেষে টুইটারে নেইমার লিখেছেন, ‘ভিএআর আমার ‘আক্রমণকে’ চিহ্নিত করেছে। এটা করা হয়তো সহজ। এখন আমি ওই বর্ণবাদীর ছবিও দেখতে চাই যে আমাকে ‘বানর’ বলেছে।’

লিগ ওয়ানে নিজেদের প্রথম দুটি ম্যাচেই হেরেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন পিএসজি। রবিবার ঘরের মাঠে মার্সেইয়ের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে নেইমারের দল পিএসজি। তবে এই ম্যাচে জয় পরাজয়ের হিসাবের আলোচিত বিষয় হচ্ছে, ম্যাচটিতে ১০টি হলুদ কার্ড এবং ৫টি লালকার্ড দেখাতে হয়েছে রেফারিকে।

যে পাঁচজনকে লালকার্ড দেখানো হয়েছে তার মধ্যে পিএসজির তিনজন। তারা হলেন নেইমার, কুরজাওয়া আর প্যারেডেস। মার্সেইয়ের লালকার্ড দেখা দুই খেলোয়াড় হলেন আমাভি এবং বেনেদেত্তো।

আরোও পড়ুন: এবার সালাহকে দলে নিতে আগ্রহী বার্সেলোনা

পার্ক দেস প্রিন্সেসে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে শুরু থেকেই দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে বাদানুবাদ চলছিল। কিন্তু নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পরে গিয়ে মারামারিতে রূপ নেয়। যে ঘটনা চলে গিয়েছিল রেফারির নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

প্রথমে কার্ড দেখানো হয় দুই দলের দুই লেফট ব্যাককে। পিএসজির কুরজাওয়া আর মার্সেইয়ের আমাভি ঘুষাঘুষিতে জড়িয়ে পড়লে তাদের লাল কার্ড দেখান রেফারি।

নেইমার
নেইদুর্দান্ত সব বাংলা কন্টেন্ট এবং লাইভ টিভি দেখতে ছবিতে ক্লিক করুণ

পিএসজির প্যারেডেস ও প্রতিপক্ষের বেনেদেত্তোকে দ্বিতীয়বারের মতো হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়। তারাও ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন। পরে ভিএআর রিভিউয়ের মাধ্যমে রেফারি নিশ্চিত হন যে, নেইমার আলভারো গঞ্জালেজকে পেছন থেকে মাথার পেছনে আঘাত করেন। যার কারণে নেইমারকে রেফারি লালকার্ড দেখান। নেইমার ও গঞ্জালেজের মধ্যে ম্যাচের শুরু থেকেই বাদানুবাদ চলছিল। ম্যাচের পরে নেইমার বলেছেন, ‘গঞ্জালেজ একজন বর্ণবাদী। যে কারণে আমি তাকে আঘাত করেছি।’

আরোও পড়ুনঃ

3 thoughts on “নেইমার মাঠে বর্ণবাদের শিকার , দেখলেন লালকার্ড!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *